শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩:৩৮ pm

ডিজিটাল আইডি কর্মসূচিতে যাচ্ছে অন্টারিও

ডিজিটাল আইডি কর্মসূচিতে যাচ্ছে অন্টারিও

অন্টারিও প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড

আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ডিজিটাল পরিচিতি (আইডি) কর্মসূচি চালু করতে যাচ্ছে অন্টারিও। এর ফলে নাগরিকদের আর কাগুজে ড্রাইভার’স লাইসেন্স বা স্বাস্থ্য কার্ড বহন করার প্রয়োজন হবে না। 

এ বছরের শেষের দিকে কর্মসূচিটি চালু হবে বলে সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে। গত বুধবার কর্মসূচির বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য প্রকাশ করে সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে, অন্টারিওবাসীর জন্য পরিচয় সনাক্তকরণের এটা সহজ ও সুবিধাজনক সমাধান।

প্রশ্ন হচ্ছে কিভাবে কাজ করবে এটি। কর্মসূচিটির আওতায় অন্টারিওবাসী বিশ^াসযোগ্য সরকারি পরিচয়পত্র যেমন ড্রাইভার’স লাইসেন্স ও স্বাস্থ্য কার্ডের ইলেক্ট্রনিক ভার্সন পাবেন। সরকারের দাবি অনুযায়ী, যা অধিক নিরাপদ। আপনার পরিচয়পত্রটি একটি ডিজিটাল ওয়ালেটে সংরক্ষিত থাকবে, স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেট ও ল্যাপটের মতো ডিভাইসে ডাউনলোড করে নেওয়া যাবে। এই ডিজিটাল আইডি ব্যক্তি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অনলাইন ও অফলাইন দুই ভাবেই পরিচয় সনাক্তে সহায়তা করবে। একই সঙ্গে এর ফলে ব্যবহারকারীর গোপনীয়তাও আরো বেশি সুরক্ষিত হবে। ধরা যাক আপনি যে প্রাপ্ত বয়স্ক সেটা আপনাকে দেখাতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনি যে ১৮ বছরের বেশি বয়সী যাচাইকারী কেবল সেটাই জানতে পারবেন। প্রকৃত বয়স বা আপনার জন্ম তারিখ জানার সুযোগ থাকবে না যাচাইকারীর। 

ডিজিটাল আইডি কোনো কেন্দ্রীয় ডেটাবেজে সংরক্ষিত থাকবে না। এটি কেবল আপনার ব্যক্তিগত মোবাইল ডিভাইসেই সংরক্ষিত থাকবে এবং ডিভাইসটি চুরি হয়ে গেলে দূর থেকেই সেটি বন্ধ করে দিতে পারবেন। সরকারের ভাষায়, ডিজিটাল আইডি কোনো ট্র্যাকিং ডিভাইস নয় এবং কোথায় আপনি এটি ব্যবহার করেছেন সে সংক্রান্ত কোনো তথ্য রাখবে না।

আরেকটি প্রশ্ন হচ্ছে কোথায় কোথায় ব্যবহার করতে পারবেন আপনার ডিজিটাল আইডি? একাধিক স্থানে অন্টারিওবাসী ডিজিটাল আইডি ব্যবহার করতে পারবেন। সরকার বলছে, এর সম্ভাবনা কাজে লাগাতে বছরাধিক সময় লাগবে। তারপরও বেশ কিছু স্থানের তালিকা দেওয়া হয়েছে, কর্মসূচিটি চালু হওয়ার পর যেখানে তা ব্যবহার করা যাবে। এর মধ্যে আছে, লটারি টিকিটের মতো বয়স-সংবেদনশীল কিছু ক্রয়, পোস্ট অফিসের কোনো প্যাকেজ গ্রহণ, প্রতিবন্ধী সহায়তার মতো সরকারি সহযোগিতা বা সুবিধা (সিইআরবি অথবা ইআই) গ্রহণ, ভ্যাকসিনেশন রেকর্ডে প্রবেশ ও ব্যবহার, ব্যাংক হিসাব খোলা, চিকিৎসকের অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেওয়া, ডাক্তার দেখানো, অনলাইনে মেডিকেল রেকর্ডে প্রবেশ, ড্রাইভার’স লাইসেন্স গ্রহণ, নবায়ন বা প্রতিস্থাপন করা, হেলথ কার্ড নবায়ন বা বদলানোর জন্য আবেদন করা এবং লাইসেন্স প্লেট স্টিকার নবায়ন বা বদলানো। 

ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ডিজিটাল আইডি কর্মী নিয়োগ, ব্যবসার পরিচিতির প্রমাণ দেওয়া, ব্যবসায়ী হিসাব খোলা, ঋণ, অনুদান ও ট্যাক্স ক্রেডিটের জন্য আবেদন এবং গ্রাহক পরিচিতি যাচাইকরণে ব্যবহৃত হতে পারে।

তাহলে কিভাবে ডিজিটাল আইডি পাবেন আপনি? সরকার এখনও ডিজিটাল আইডি কর্মসূচি চালু করেনি। এটি চালু হলে নাগরিকরা তাদের মোবাইল ডিভাইস বা কম্পিউটারে অন্টারিও ডিজিটাল ওয়ালেট অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। এরপর তাদেরকে কর্মসূচিতে সাইন আপ করে অনলাইন বা সরাসরি আইডি যাচাই করে নিতে পারবেন। এরপর নাগরিকরা তাদের আইডি কার্ড ডিজিটাল ওয়ালেটে সংযুক্ত করে ব্যবহার করতে পারবেন। 

Comments