শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩:৪৯ pm

মেইলে ভোট দেবেন যেভাবে

মেইলে ভোট দেবেন যেভাবে

মেইল-ইন ভোটিংয়ের কথা ভাবছেন অনেকেই

২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় জাতীয় নির্বাচনে ভোট দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন কানাডিয়ানরা। তবে কোভিড-১৯ মহামারির কারণে সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগ বাড়তে থাকায় মেইল-ইন ভোটিংয়ের কথা ভাবছেন অনেকেই। 

গ্লোবাল নিউজের জন্য পরিচালিত ইপসসের সমীক্ষা বলছে, ২৫ শতাংশ ভোটারই বুথে গিয়ে সশরীরে ভোট দেওয়াকে নিরাপদ মনে করছেন না। এদের মধ্যে ১৬ শতাংশ মেইলের মাধ্যমে ভোট দেওয়ার কথা ভাবছেন। তবে ২১ শতাংশ এখনও এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি। ১ হাজার ৫০০ কানাডিয়ানের ওপর সমীক্ষাটি চালানো হয়। 

এ বছরের ভোটকে নিরাপদ করতে ইলেকশন্স কানাডা মেইলে ভোট দেওয়ার বাড়তি সুযোগ রাখছে। কিভাবে সেটা হবে?

যোগ্য ভোটাররা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। তবে ভোটারদের এজন্য ড্রাইভিং লাইসেন্স অথবা পাসপোর্ট এবং বর্তমান ঠিকানা যেমন আপনার বাড়ির সাম্প্র্রতিক ঠিকানা সরবরাহ করতে হবে। কোভিড-১৯ মহামারির কারণে বিদেশে অবস্থানকারী কানাডিয়ানরা যেকোনো সময় মেইলে ভোট দেওয়ার জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। তবে কানাডায় বসবাসকারীদের ভোটের আগের মঙ্গলবার অর্থাৎ ১৪ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সময় বিকাল ৬টার মধ্যে আবেদন করতে হবে। আবেদনকারীদের কাছে তাদের নাগরিকত্ব, বয়স, ইমেইল ঠিকানা এবং বাড়ি ও যোগাযোগের ঠিকানা চাওয়া হবে। আবেদনের পর তা প্রক্রিয়াকরণে সময় লাগবে সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা। আবেদনের পর সর্বশেষ অবস্থা রেফারেন্স নাম্বার ব্যবহার করে যে কেউ জানতে পারবেন। আবেদনপত্র পূরণের পর রেফারেন্স নাম্বারটি পাঠিয়ে দেওয়া হবে। আবেদনপত্র নিয়ে কোনো ইস্যু থাকলে ইলেকশন্স কানাডা তাদের সঙ্গে কথা বলবে।

আবেদনপত্র অনুমোদন হওয়ার পর কি করবেন? ইলেকশন্স কানাডার মুখপাত্র নাতালি দ্য মনটিনি বলেন, এরপর ভোটাররা একটি কিট পাবেন, যেখানে থাকবে নির্দেশিকা, সময়সীমার বিস্তারিত তথ্য, আগে থেকেই ঠিকানা সম্বলিত একটি ফিরতি খাম, বাড়তি নিরাপত্তা খাম ও একটি বিশেষ ব্যালট। 

বিশেষ ব্যালটে একটি খালি জায়গা থাকবে, যেখানে ভোটাররা ভোট দিতে ইচ্ছুক প্রার্থীর নাম লিখবেন। সাধারণ ব্যালট থেকে এটা আলাদা। সাধারণ ব্যালটে সব প্রার্থীর নামই থাকবে, যার মধ্য থেকে পছন্দের প্রার্থীকে বেছে নিতে হবে। 

মনটিনি বলেন, আপনাকে কেবল প্রার্থীর নাম লিখতে হবে। দলের নাম লেখার দরকার নেই। আপনি যদি শুধু দলের নাম লেখেন তাহলে ব্যালটটি আর গণনা হবে না। তবে প্রার্থীর নামের বানান যদি ভুলও হয় তারপরও তা গণনা করা হবে। 

ব্যালটে প্রার্থীদের নাম সম্পর্কে নিশ্চিত না হলে কি করবেন? ইলেকশন্স কানাডার ভোটার ইনফরমেশন সার্ভিসের মাধ্যমে কানাডিয়ানরা প্রার্থীদের তালিকা, স্থান ও নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্র, স্থানীয় ইলেকশন্স কানাডার অফিস ও নির্বাচনী এলাকার ম্যাপ খুঁজে নেওয়ার সুযোগ পাবেন। ভোটের তিন সপ্তাহ আগে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা পাওয়া যাবে।

বিশেষ ব্যালটটি ২০ সেপ্টেম্বর বিকাল ৬টার মধ্যে অবশ্যই ইলেকশন্স কানাডার কাছে পৌঁছাতে হবে। এর পর কোনো ব্যালট পৌঁছলে তা গণনা করা হবে না। এছাড়া স্থানীয় ইলেকশন্স কানাডা অফিস অথবা ভোটের দিন ভোটকেন্দ্রে সংরক্ষিত বাক্সেও বিশেষ ব্যালটটি ফেলতে পারবেন ভোটাররা।

 

 

 

 

Comments