শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১:৫১ pm

ভ্যাকসিন না নিলে নিয়মিত কোভিড পরীক্ষা

ভ্যাকসিন না নিলে নিয়মিত কোভিড পরীক্ষা

অন্টারিও পাবলিক সার্ভিসের ৬৪ হাজার কর্মীর সবাইকেই ভ্যাকসিন নিতে হবে

 অন্টারিও পাবলিক সার্ভিসের (ওপিএস) ৬৪ হাজার কর্মীর সবাইকেই ভ্যাকসিন নিতে হবে। না নিলে নিয়মিত কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফলাফল জমা দিতে হবে। অন্টারিও সরকার বৃহস্পতিবার এই ঘোষণা দিয়েছে। ওপিএস কর্মীদের কাছে পাঠানো এক বার্তায় সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে, সব সরকারি চাকরিজীবীকে ভ্যাকসিনের ডোজ সম্পন্ন করতে হবে। তবে কেউ যদি না নেয় সেক্ষেত্রে স্বাস্থ্যগত কারণ জানাতে হবে।

অন্টারিওর জনস্বাস্থ্য বিভাগের চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. কিয়েরান মুর এ সপ্তাহের গোড়ার দিকে স্বাস্থ্য ও অন্যান্য খাতের কর্মীদের ক্ষেত্রে ভ্যাকসিনেশনের যে নীতির কথা ঘোষণা করেছিলেন সরকারের সাম্প্রতিক এ ঘোষণাও ঠিক সে রকমই। ট্রেজারি বোর্ডের প্রেসিডেন্ট প্রাবমিত সরকারিয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন, মহামারির পুরো সময়জুড়েই আমরা অন্টারিওবাসীর স্বাস্থ্য, সুরক্ষা ও মঙ্গলের জন্য প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। ভ্যাকসিনেশনের যোগ্য অন্টারিওর সবাইকেই আমরা ভ্যাকসিন নিতে উৎসাহিত করছি। এ কারণেই অন্টারিও পাবলিক সার্ভিসের বাধ্যতামূলক ভ্যাকসিনেশন ও পরীক্ষা নীতির প্রতি আমাদের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। মহামারির শুরু থেকেই ওপিএস কর্মীদের অনেকে বাড়ি থেকে কাজ করছেন। তবে তাদেরকে পর্যায়ক্রমে কর্মক্ষেত্রে ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা করছে সরকার।

ভ্যাকসিনেশন ও পরীক্ষা সংক্রান্ত এ নীতি মন্ত্রণালয় বা কমিশনে কর্মরত সবার ক্ষেত্রেই কার্যকর হবে। তবে ঠিক কবে থেকে নীতিটি বলবৎ হবে সেই দিনক্ষণ এখনও ঘোষণা করা হয়নি। শিগগিরই এ সম্পর্কিত বিস্তারিত জানাবে তারা। ৩১ হাজারের মতো ওপিএস কর্মী বর্তমানে কর্মক্ষেত্রে উপস্থিত হয়ে কাজ করছেন। তাদেরকে সুরক্ষা দিতেই এই নীতি বলে সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে।

কর্মীদের কাছে পাঠানো এ সংক্রান্ত বার্তায় বলা হয়েছে, বর্তমানে যে ৩১ হাজার ওপিএস কর্মী কর্মক্ষেত্রে এসে কাজ করছেন তাদেরকে সুরক্ষা দিতে সরকারের চলমান কাজের অংশ এই নীতি। সেই সঙ্গে যারা বাড়িতে বসে কাজ করছেন তাদেরকেও আগামী দুই মাসের মধ্যে নিরাপদে ও পর্যায়ক্রমে কর্মক্ষেত্রে ফিরিয়ে আনাও এর উদ্দেশ্য। প্রিমিয়ারের কার্যালয় থেকে শুরু করে সব মন্ত্রণালয়ের কার্যালয়েই এ নীতি কার্যকর হবে।

এ ঘোষণাকে ভ্যাকসিন নীতিতে ফোর্ড সরকারের অবস্থান পরিবর্তন হিসেবেই দেখা হচ্ছে এবং অন্টারিওর কোভিড-১৯ সায়েন্স টেবিলের প্রধান ড. পিটার একে শুভযাত্রা হিসেবে বর্ণনা করেছেন। প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড এতোদিন বলে আসছিলেন, কেউ না চাইলে তাকে জোর করে ভ্যাকসিন প্রদানে তিনি বিশ^াসী নন। তবে অন্টারিওর সবাইকে ভ্যাকসিন নিতে উৎসাহিত করেন তিনি।

Comments