শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮:১৫ pm

টরন্টোর ব্যবসায়ীদের মধ্যে সাবলেটের প্রবণতা কমছে

টরন্টোর ব্যবসায়ীদের মধ্যে সাবলেটের প্রবণতা কমছে

ছবি/কামার গ্রীল বার

টরন্টোর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো কর্মীদের অফিসে ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা করছে বলে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে। আবাসন প্রতিষ্ঠান এভিশন ইয়ংয়ের গত সপ্তাহে প্রকাশিত গবেষণার তথ্য বলছে, মহামারির কারণে ডাউনটাউন টরন্টোতে অফিস মার্কেটের কর্মকা- নিস্তেজ অবস্থায় রয়েছে। দ্বিতীয় প্রান্তিকে ডাউনটাউন অফিস খালির হার ৭ দশমিক ৩ শতাংশে পৌঁছেছে, যা এ যাবৎকালে সর্বোচ্চ। তবে বাজারের কর্মকা- পুনরুদ্ধারের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে।
এভিশন ইয়ংয়ের তথ্য অনুযায়ী, সাবলেট মার্কেটের যেসব কোম্পানি ডাউনটাউন ছেড়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল তারাও এখন তাদের সিদ্ধান্ত বদল করেছে। গত ছয় মাসের মধ্যে প্রথমবারের মতো সাবলেট স্পেসের পরিমাণও কমেছে। দ্বিতীয় প্রান্তিক শেষে ডাউনটাউনে সাবলেট স্পেস ছিল ২ লাখ ৮৮ হাজার বর্গমিটার বা মোট স্পেসের ৩২ শতাংশ। এর অর্থ হচ্ছে অধিক সংখ্যক কর্মী অফিসে ফিরবেন বলে ডাউনটাউনের কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অনুমান করছে।
টিএমএক্স গ্রুপ ও ইন্টেলেক্স টেকনোলজিসের মতো কিছু কোম্পানি মার্কেট থেকে সাবলেট স্পেস আংশিক বা পুরোপুরি বাতিল করেছে। এছাড়া নেটফ্লিক্সের সদরদপ্তর ভ্যানকুভার থেকে টরন্টোতে সরিয়ে আনা টরন্টোর টেক হাব হয়ে ওঠার বার্তা দিচ্ছে বলে গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে।
এদিকে সান লাইফ কাজের বন্দোবস্ত কেমন হবে সে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা কর্মীদের ওপর ছেড়ে দিয়েছে। তবে অ্যাপল তাদের কর্মীদের তিন দিন অফিস করতে বলেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাজার পুনরুদ্ধার হলে গ্রেটার টরন্টো এরিয়ার প্রবৃদ্ধিতে নিয়ামক হিসেবে আবির্ভূত হবে ডাউনটাউন।





Comments