শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮:২১ pm

ব্যারির রেস্তোরাঁ ম্যানেজারের বিরুদ্ধে আরও ১২টি অভিযোগ

ব্যারির রেস্তোরাঁ ম্যানেজারের বিরুদ্ধে আরও ১২টি অভিযোগ

স্টিফেন লেমন্ড

ব্যারির একটি সাবওয়ে রেস্তোরাঁর ম্যানেজার ৪৭ বছর বয়সী স্টিফেন লেমন্ড আরও ১২টি অভিযোগের মুখে রয়েছেন। গত ১৩ জুন রেস্তোরাঁর পেছনের কক্ষে ১৭ বছর বয়সী এক নারীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগে প্রাথমিকভাবে চারটি অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে। নতুন অভিযোগগুলো গত বৃহস্পতিবার আনা হয়েছে এবং এসব অপরাধ ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০২১ সালের মধ্যে সংঘটিত হয়েছে।

স্টিফেন লেমন্ডের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলোর মধ্যে ছয়টি যৌন হয়রানীর, পাঁচটি যৌন নিপীড়নের, দুটি হামলার, দুটি যৌন হয়রানির উদ্দেশে একজন তরুণীকে আমন্ত্রণ এবং একটি ১৬ বছর বয়সী একজনের ক্ষেত্রে যৌন হস্তক্ষেপ। তার বিরুদ্ধে প্রথমদিকের অভিযোগগুলো আনা হয় যৌন হয়রানীর শিকার হওয়ার কয়েক মিনিট আগে এক তরুণীর তার মাকে করা ফোনকলের ভিত্তিতে। 

এক বার্তায় ওই তরুণী বলেন, আমি কৃতজ্ঞ যে এই ইস্যুতে আরও অনেককে কথা বলতে সহায়তা করতে পেরেছি। আমি মনে করি বেশি সংখ্যক অভিযোগ তাকে জেলে পাঠাতে ভূমিকা রাখবে, যার ফলে প্রত্যেকে নিরাপদ বোধ করবেন। আরও অনেকেই যে এই ইস্যুতে এগিয়ে এসেছে তাতে আমি বিস্মিত হয়নি। 

তিনি বলেন, আমার ওপর দিয়ে যা গেছে তাতে আমি ভালো নেই। রাতে আমার ঘুম হয় না এবং আমাকে ওষুধ খেতে হয়। বাড়ির বাইরে বেরোনো আমার জন্য কঠিন এবং সব সময়ই মনে হয় সে আমার পিছু নিয়েছে। 

আইনী বিধিনিষেধের কারণে নিপীড়নের শিকার ওই তরুণীর পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। একইভাবে কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে তার মাকেও। ওই তরুণী বলেন, একই অভিযোগ নিয়ে যে আরও অনেকেই আসবে সে ব্যাপারে আমি শতভাগ নিশ্চিত ছিলাম। একইভাবে আমি বিস্মিতও হয়েছি। কারণ, এতোগুলো অভিযোগ পড়বে সেটা আমি ভাবতে পারিনি। 

এদিকে স্টিফেন লেমন্ডের মালিকানাধীন দুটি রেস্তোরাঁর সামনে কয়েক সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন ক্ষুব্ধ নাগরিকরা। ২৩ জুলাই আরেকটি সমাবেশের কথা রয়েছে।

১৭ বছর বয়সী ওই তরুণী বলেন, আমার পরিবার আমার পাশে রয়েছে। তবে এটা যে দীর্ঘ প্রক্রিয়া সে ব্যাপারে আমি সতর্ক আছি। তারপরও আমার বিশ^াস, শেষ পর্যন্ত আমি উৎরে যাবো।

আগামী ৯ আগস্ট লেমন্ডকে আদালতে উপস্থাপনের কথা রয়েছে। 

 

 

 

 

 

 

Comments