শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮:১২ pm

মার্কিনীদের জন্য মধ্য আগস্টে খুলছে কানাডার সীমান্ত

মার্কিনীদের জন্য মধ্য আগস্টে খুলছে কানাডার সীমান্ত

ছবি/সিবিএসএ

পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড মার্কিন ভ্রমণকারীদের মধ্য আগস্ট নাগাদ স্বাগত জানাবে কানাডা। যদিও বিপজ্জনক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে আরও ভয়াবহ সতর্ক বাণী উচ্চারণ করেছেন মার্কিন জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। 

ইউএস সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) পরিচালক ড. রোশেল ওয়ালেনস্কি শুক্রবার এক ব্রিফিংয়ে বলেন, ভ্যাকসিন না নেওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ভ্যারিয়েন্টটি মহামারি আকার ধারণ করছে। সিডিসি গত সাত দিনের সংক্রমণ পর্যালোচনা করে দেখেছে দৈনিক গড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ২৬ হাজার ৩০০। আগের সপ্তাহের চেয়ে এটা ৭০ শতাংশ বেশি। কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুও ২৬ শতাংশ বেড়েছে। দেশের যেসব অঞ্চলে ভ্যাকসিনেশনের হার কম সেসব অঞ্চলে প্রাদুর্ভাব বেশি দেখতে পাচ্ছি। কারণ, ভ্যাকসিন না নেওয়া ব্যক্তিরা সংক্রমণের ঝুঁকিতে রয়েছেন। এর বিপরীতে যেসব অঞ্চলের সবাই পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড সেসব অঞ্চল সাধারণত ভালো করছে।

বৃহস্পতিবার প্রাদেশিক ও আঞ্চলিক নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে মার্কিন নাগরিকদের কানাডায় প্রবেশের সুযোগ দেওয়ার বিষয়টি খোলাসা করেন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। তিনি বলেন, সীমান্ত বিধিনিষেধ থেকে পরবর্ততে অব্যাহতি পাবেন কেবল পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড মার্কিন নাগরিক ও স্থায়ীভাবে বসবাসকারীরা। তবে ভ্রমণকারীরা যে ভ্যাকসিনেটেড কীভাবে তারা সেটা প্রমাণ করবে সে ব্যাপারে কোনো ইঙ্গিত দেননি প্রধানমন্ত্রী।

জাস্টিন ট্রুডোর কার্যালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমাদের ভ্যাকসিনেশনের বিদ্যমান ইতিবাচক হার যদি অব্যাহত থাকে এবং জনস্বাস্থ্য পরিস্থিতির উন্নতি চলতে থাকে তাহলে সেপ্টেম্বর নাগাদ পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড সব বিদেশি নাগরিককে কানাডায় স্বাগত জানানো হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। রিওপেনিং নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চলমান যে আলোচনা তার পরিপ্রেক্ষিতে মধ্য আগস্ট থেকে পুরোপুরি ভ্যাকসিনেটেড মার্কিন নাগরিক ও স্থায়ীভাবে বসবাসকারীরা অনাবশ্যক কাজে কানাডা ভ্রমণের সুযোগ পাবেন।

এদিকে ভ্যাকসিনেশনের পক্ষে কোনো ধরনের প্রমাণপত্র চালুর পরিকল্পনার কথা পুরোপুরি বাতিল করে দিয়েছে হোয়াইট হাউজ। তাই কিভাবে প্রক্রিয়াটি বাস্তবায়িত হবে তা নিয়ে ধোয়াশা থেকেই যাচ্ছে। হোয়াইট হাউজের কোভিড-১৯ রেসপন্স টিমের সমন্বয়কারী জেফ জেইন্টস শুক্রবার বলেন, জনগণের স্বাস্থ্যকে সবার আগে অগ্রাধিকার দেওয়ার বিষয়টি আমরা অব্যাহত রাখবো। আন্তর্জাতিক ভ্রমণ উন্মুক্তকরণ সম্পর্কিত যেকোনো সিদ্ধান্ত আমাদের জনস্বাস্থ্য ও চিকিতসা বিশেষজ্ঞদের মতামতের ভিত্তিতে নেওয়া হবে। সংক্রমণের হার, ভ্যাকসিনেশনের হার ও কোনো ভ্যারিয়েন্ট বিশেষ করে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতির মতো বিভিন্ন বিষয় তারা বিবেচনায় নেবেন এক্ষেত্রে।

কানাডায় যোগ্য ৮০ শতাংশ নাগরিক অন্তত এক ডোজ ভ্যাকসিন পেয়েছেন এখন পর্যন্ত। উভয় ডোজ ভ্যাকসিন পেয়েছেন ৫৪ শতাংশ কানাডিয়ান। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে ১২ বছরের বেশি বয়সী নাগরিকদের মধ্যে এ হার যথাক্রমে ৬৫ ও ৫৬ শতাংশ। 

 

 

Comments