রবিবার, ১ আগস্ট ২০২১, ১০:৩৬ am

শিথিল হচ্ছে গৃহঋণ বিমার আন্ডাররাইটিং মানদন্ড

শিথিল হচ্ছে গৃহঋণ বিমার আন্ডাররাইটিং মানদন্ড

মোট ডেট সার্ভিস রেশিও ৪৪ শতাংশে উন্নীত করার কথা ভাবা হচ্ছে

কানাডা মর্টগেজ অ্যান্ড হাউজিং কর্পোরেশন (সিএমএইচসি) গৃহঋণ কিমার আন্ডাররাইটিং মানদন্ডে গত বছর যে পরিবর্তন এনেছিল তা শিথিল করছে। গত সোমবার এই তথ্য জানিয়েছে সংস্থাটি। 

তারা বলছে, ঋণ গ্রহীতাদের জন্য গ্রস ডেট সার্ভিস রেশিও ৩৯ শতাংশে এবং মোট ডেট সার্ভিস রেশিও ৪৪ শতাংশে উন্নীত করার কথা ভাবা হচ্ছে। তবে ওই ঋণ গ্রহীতাদের ঋণ পরিশোধ বাধ্যবাধকতা ভালোভাবে মেনে চলার ইতিহাস থাকতে হবে।

গ্রস ডেট সার্ভিস বলতে সর্বোচ্চ বাৎসরিক আয়কে বোঝায়, যা গৃহঋণ, কন্ডো ফি পরিশোধে ব্যবহৃত হয়। পাশাপাশি ৬০০ বা তার বেশি ক্রেডিট স্কোরধারী অন্তত একজন গ্রহীতা বা গ্যারান্টার চাইতে পারে সংস্থাটি। সিএমএইচসি এক বিবৃতিতে বলেছে, আমরা এই উদ্যোগ নিতে যাচ্ছি। কারণ ২০২০ সালে আন্ডাররাইটিং পদ্ধতিতে যে পরিবর্তন আমরা যে পরিবর্তন এনেছিলাম তা কাজে আসেনি, যেমনটা আমরা আমা করেছিলাম এবং এর ফলে আমাদের বাজার হিস্যা হ্রাস পেয়েছে।

গত বছরের জুলাইয়ে ন্যূনতম ক্রেডিট স্কোর কমপক্ষে ৬৮০ এবং গ্রস ও মোট ডেট সার্ভিস রেশিও যথাক্রমে ৩৫  ৪২ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছিল। এর ফলে ক্রয় ক্ষমতা ১১ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস পাবে বলে মনে করা হয়েছিল। উদ্যোগটির উদ্দেশ্য ছিল বাড়ির ক্রেতাদের সুরক্ষা দেওয়া, সরকার ও করদাতাদের ঝুঁকি হ্রাস এবং আবাসন বাজারে স্থিতিশীলতা আনা। পাশাপাশি মহামারির সময় অত্যধিক চাহিদা ও অটেকসই মূল্য বৃদ্ধি হ্রাস করাও এর আরেকটি উদ্দেশ্য। খবর: দ্য কানাডিয়ান প্রেস। 

 

Comments