শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬:৩৪ pm

চীনের বিদেশি এজেন্টদের মাধ্যমে কানাডিয়ানদের হুমকি

চীনের বিদেশি এজেন্টদের মাধ্যমে কানাডিয়ানদের হুমকি

চীন-কানাডার মধ্যকার বৈঠক...ফাইল ছবি

চীনা দূতাবাসের মাধ্যমে কানাডায় হয়রানীমূলক প্রচারণা চালানো হচ্ছে এবং দেশটির বিদেশি এজেন্টরা কানাডিয়ান নাগরিকদের হুমকি দিয়েছে বলে কমন্স কমিটির সাক্ষ্যে উঠে এসেছে।
হাউস অব কমন্সের পররাষ্ট্র বিষয়ক সাব-কমিটিকে লেখা মন্ত্রিসভার এক চিঠিতে বলা হয়েছে, কানাডিয়ানদের কর্মকা-ে হস্তক্ষেপের বিষয়ে চীনা কর্তৃপক্ষকে সরকার সতর্ক করে দিয়েছে। সেই সঙ্গে কানাডিয়ানদের স্বাধীনভাবে মত প্রকাশের ক্ষেত্রে ভীতি প্রদর্শনের ব্যাপারে সরকার সরাসরি উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এবং আগামীতেও এটা অব্যাহত রাখা হবে।
তবে ২৩ জুন লেখা ওই চিঠিতে সুনির্দিষ্ট কোনো ঘটনা উল্লেখ করা হয়নি। চিঠিতে বলা হয়েছে, চীনসহ কিছু বিদেশি রাষ্ট্র যে কানাডিয়ান, কানাডায় বা কানাডার বাইরে বসবাসকারী ব্যক্তি ও তাদের পরিবার বিশেষ করে চীনা অভিবাসীদের হয়রানী, হুমকি ও ভীতি প্রদর্শন করতে পারে সে ব্যাপারে সরকরা সতর্ক রয়েছে।
কানাডায় বসবাসকারী উইঘুরের নাগরিক রুকি তারদাশ ৩১ মে স্পেশাল কমন্স কমিটির সামনে সাক্ষ্য দিয়েছিলেন। ২০১৯ সালে ম্যাকমাস্টার ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস ক্লাব, চাইনিজ স্টুডেন্টস অ্যান্ড স্কলার্স অ্যাসোসিয়েশন নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। উইঘুর শিক্ষার্থীদের হেনন্থার সন্দেহ থেকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
তারদাশ তার সাক্ষে বলেন, চীনা দূতাবাস এই শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে এবং কী করতে হবে তাও তারা বাতলে দেয়। ম্যাকমাস্টারের মুসলিম স্টুডেন্টস’ অ্যাসোসিয়েশনে দেওয়া তার বক্তব্যও গোপনে ভিডিও করা হয়। নিশ্চিতভাবেই এটা গোয়েন্দাদের কাজ। এটা কেবল আমার ও আন্তর্জাতিক চীনা ছাত্রদের মধ্যকার বিষয় নয়। এটা কানাডায় চীনের প্রভাব। সরকারকেই বিষয়টি দেখতে হবে।





Comments